Thursday, October 19, 2017

এনআরবি নিউজ,নিউইয়র্ক থেকে : শোকাবহ আগস্টের প্রথম প্রহর অর্থাৎ ৩১ জুলাই দিবাগত রাত ১২টা এক মিনিটে মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন।
নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে ডাইভার্সিটি প্লাজায় মধ্যরাতের এ কর্মসূচি ভিনদেশীদের কৌতুহল বাড়িয়ে দেয় এবং সকলেই গভীর শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন বাঙালি জাতির এই নেতার প্রতি।

নিউইয়র্ক : শোকের মাস আগস্টের প্রথম প্রহরে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার্সিটি প্লাজায়। ছবি-এনআরবি নিউজ।

পুরো আগষ্ট জুড়েই রয়েছে নানা কর্মসূচি। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘পঁচাত্তরের ১৫ই আগস্টের কালরাতে যারা জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের সকলকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে, তাদের বিচার সম্পন্ন হলেও রায় কার্যকর হতে পারেনি কয়েকজনের। তাদের একজন যুক্তরাষ্ট্র এবং আরেকজন কানাডায় পালিয়ে রয়েছে। এই দুই ঘাতককে বাংলাদেশ সরকারের সমীপে সোপর্দ করার জন্যে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাবো।’
শোকের মাস আগস্টের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনায় প্রবাসের সকল মসজিদ, মন্দির, গীর্জায় দোয়া-প্রার্থনা, বাঙালি জাতির সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এই নেতার জীবন-কর্ম নিয়ে আলোচনা, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সম্পন্ন মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস প্রবাস প্রজন্মকে অবহিত করা, ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পন, আলোচনা সভা এবং বঙ্গবন্ধু পরিবারের জীবিত সদস্যগণের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া-মাহফিল ইত্যাদি। এ সময়ে বাঙালি জাতির এগিয়ে চলার বিরুদ্ধে এই প্রবাসেও যারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে, তাদের শক্তহাতে প্রতিরোধের সংকল্পও গ্রহণ করবেন নেতা-কর্মীরা।
মোমবাতি প্রজ্বলনের এই কর্মসূচিতে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন আজাদ, যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন দেওয়ান, যুব সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান টুকু, জনসংযোগ সম্পাদক কাজী কয়েস, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ডা. মাসুদুল হাসান এবং হাকিকুল ইসলাম খোকনসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং মহিলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

 

1 Comment

সাঈদ, মুক্তিযোদ্ধা বিমানসেনা August 1, 2017 at 12:34 pm

“……….তাদের একজন যুক্তরাষ্ট্র এবং আরেকজন কানাডায় পালিয়ে রয়েছে। এই দুই ঘাতককে বাংলাদেশ সরকারের সমীপে সোপর্দ করার জন্যে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাবো…….. ” বেশ ভাল কথা। কিন্তু এ পর্যন্ত আমরা কি করেছি তার একটা ফিরিস্তি দেয়া উচিত ছিল ? আমার জানামতে আমরা এখানে কিছুই করতে পারিনি এবং চেষ্টাও করিনি। আমরা আছি আমাদেরকে নিয়ে এবং এই আগষ্ট মাস এলেই আমরা নানা কর্মসূচী নিয়ে লম্ফ ধম্ভ করি। বাকী সময় ব্যস্ত থাকি দেশে ব্যাংক ব্যবসায়, কেহ বা ব্যস্ত থাকি ক্ষমতাসীন সরকারের কাছ থেকে কিছু ব্যবসা বানিজ্য হাতিয়ে নেবার জন্য। সুতরাং ……?

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।