Sunday, November 19, 2017

জাতীয় শোক দিবস ২০১৭ এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ভারতের মুম্বাই-এ অবস্থিত বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে যথাযোগ্য মর্যাদায় এবং ভাবগম্ভীর পরিবেশে স্মরণ ও পালন করা হয়। দিবসটি স্মরণে উপ-হাইকমিশনে জাতীয় পতাকার আনুষ্ঠানিক উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণ, মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ, দোয়া ও মোনাজাত, আলোচনা ও স্মরণ সভা এবং প্রামান্য চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
মুম্বাই-এ নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার মিজ্ সামিনা নাজ দূতাবাস প্রাঙ্গনে জাতীয় পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলন এবং অর্ধনমিতকরণের মাধ্যমে শোক দিবসের কর্মসূচীর সূচনা করেন। মুম্বাই-এ বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী, স্বাগতিক দেশের উচ্চপদস্থ সরকারী কর্মকর্তা, ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক প্রধান এডমিরাল (অবঃ) ভিষ্ণু ভগওয়াৎ, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহনকারী ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক কর্ণেল পুনতামবেকার, এ্যাডভোকেট নীলুফার ভগওয়াৎ-সহ স্থানীয় গণ্যমান্য অতিথিবৃন্দ এবং উপ-হাইকমিশনে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পতাকা অর্ধনমিতকরণ সমাপনান্তে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত প্রার্থনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
আলোচনা সভার শুরুতে মহান এ দিবসে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। বাণী পাঠ শেষে উপ-হাইকমিশনার শোক সভায় বিনম্্র শ্রদ্ধাচিত্তে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে আলোচনায় তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগষ্টে শাহাদত বরণকারী সকলের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি তাঁর বক্তব্যে জাতির জনকের জীবনাদর্শ এবং আমাদের স্বাধীনতা অর্জনের সকল সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর অবিসংবাদিত নেতৃত্ব ও অপরিসীম আত্মত্যাগের কথা সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করেন। জাতীয় শোকদিবসে তিনি শোককে শক্তিতে রুপান্তরিত করার মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সুখী ও সমৃদ্ধ ”সোনার বাংলা” গড়তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ঘোষিত ”রুপকল্প-২০২১” বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশে ও প্রবাসে বসবাসরত সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। শোক দিবসের এ স্মরণ সভায় ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক প্রধান এডমিরাল (অবঃ) ভিষ্ণু ভগওয়াৎ, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহনকারী ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক কর্ণেল পুনতামবেকারসহ প্রবাসী বাংলাদেশীগণও আলোচনায় অংশ নেন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতি তাঁদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।
শোকসভার শেষ পর্বে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনভিত্তিক একটি প্রামাণ্যচিত্র ”সোনালী দিনগুলো (Those Golden Days)” প্রদর্শন করা হয়।

0 Comments

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।