Sunday, September 24, 2017

মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): সিটির এস্টারিয়ায় মওলানা মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম নামের এক বাংলাদেশী হামলার শিকার হয়েছেন। গত ১৩ আগষ্ট রোববার ভোর রাতে স্থানীয় ৩৭ এভিনিউ আর ৩১ স্ট্রীটের কর্ণারে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি হেইট ক্রাইম বলে অভিযোগ করেছেন হামলার শিকার মওলানা মাহবুবুল আলম। খবর ইউএনএ’র।
এস্টোরিয়ার আল আমীন মসজিদের সাবেক সহকারী ইমাম মওলানা মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম ইউএনএ প্রতিনিধিকে বলেন, ঘটনার সময় (বোরববার ভোর ৩:৪৫ মিনিট) তিনি তার গাড়ী পার্ক করে গাড়ীতেই বসেছিলেন। এসময় তিন জন যুবকের মধ্যে একজন তার গাড়ীর সামনের দরজা খোলা পেয়ে ভিতের ঢুকে তার উপর চড়াও হয়। হামলাকারী যুবক তাকে কিল-ঘুষি মারতে থাকে এবং অপর দু’জন তাকে ঘেরাও করার চেষ্টা করে। অবস্থা বেগতিক দেখে মওলানা মাহবুবুল আলম গাড়ী থেকে বেরিয়ে দৌড় দেন। এই ফাঁকে হামলাকারীরা তার গাড়ী নিয়ে কেটে পরে। পরবর্তীত তিনি পুলিশ কল করলে সিটি পুলিশ এসে তাকে (মওলানা মাহবুবুল আলম) স্থানীয় মাইন্ট সিনাই হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে তার প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।
মওলানা মাহবুবুল আলম জানান, পরদিন ১৪ আগষ্ট সোমবার পুলিশ তার গাড়ীটি বেলা একটার দিকে লং আইল্যান্ড সিটির ৩৮ এভিনিউ আর স্ট্রীট ৯ স্ট্রীট এলাকা থেকে উদ্ধার করে তার কাছে ফেরৎ দেয়। হামলাকারীরা গাড়ীর চাবি সহ গাড়ীতে থাকা মওলানা মাহবুবুল আলমের ওয়ালেট সকল আইডি, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ক্রেডিট কার্ড, নগদ ১৩০০ ডলার এবং গাড়ীতে থাকা স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। তারা সোমবার দিন মওলানা মাহবুবুল আলমের ক্রেডিট কার্ডও ব্যবহার করে বলে তিনি জানান। এব্যাপারে স্থানীয় পুলিশ প্রিসিঙ্কটে অভিযোগ (কেস নম্বর ৭২৮৩, তারিখ: ০৮/১৩/২০১৭) দায়ের করা হয়েছে।
মওলানা মাহবুবুল আলম ঘটনাটিকে হেইট ক্রাইম হিসেবে আখ্যায়িত করে এব্যাপারে পুলিশকেও অবহিত করেছেন। ঘটনার তদন্ত চলছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (১৬ আগষ্ট) মওলানা মাহবুবুল আলমের উপর হামলাকারী কেউ গ্রেফতার হননি।

0 Comments

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।