Tuesday, September 26, 2017


নিউইয়র্ক (ইউএনএ): ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট ‘জাতীয় শোক দিবস’ স্মরণে বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক গত মঙ্গলবার (১৫ আগষ্ট) বিকেলে সোসাইটি অফিসে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। সভায় বক্তারা ‘জাতির জনক’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার নিন্দা জানান এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট নিহত সকলের বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেন। বক্তারা দলমতের উর্ধ্বে দেশের সকল জাতীয় নেতাদের যথাযথ সম্মান দেওয়া উচিৎ বলে মন্তব্য করেন। খবর ইউএনএ’র।
সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী। অনুষ্ঠানে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন উডসাইড বায়তুল জান্নাহ মসজিদের ইমাম হাফেজ মওলানা আশরাফুল ইসলাম। আলোচনায় অংশ নেন মুক্তিযোদ্ধা সরাফ সরকার, সোসাইটির সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুর রহীম হাওলাদার, সহ সভাপতি আব্দুল খালেক খায়ের, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ এম কে জামান, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা মনিকা রায়, স্কুল ও শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আহসান হাবীব প্রমুখ।
সভায় সোসাইটির অন্যান্য কর্মকর্তদের মধ্যে প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক রিজু মোহাম্মদ, সাহিত্য সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমেদ, কার্যকরী পরিষদ সদস্য আবুল কাশেম চৌধুরী এবং সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দিন আহমেদ সোহাগ ও সাবেক কার্যকরী পরিষদ সদস্য সৈয়দ ইলিয়াস খসরু উপস্থিত ছিলেন।

3 Comments

একজন প্রবাসী August 19, 2017 at 2:36 pm

বংগবন্ধুসহ ঐ দিন হায়েনাদের হাতে যারা জীবন দিয়েছেন তাদের সকলের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি সেই সাহে সেই হায়েনার দলকে জিজ্ঞেস করছি, “দেখেছিস বংগবন্ধুর জনপ্রিয়তা? তাকে মেরে কি পেয়েছিস? জাতি কি হারালো? একবার নিজেকে জিজ্ঞেস করে দেখবি কি তোদের অবস্থান কোথায়?” সেই হায়েনাদের প্রধান উপদেষ্টা, যিনি সেই ১৫ আগষ্ট সারা রাত ইউনিফর্ম পরিহিতাবস্থায় সেনা সদরে বসে ছিলেন হত্যা কান্ডের খবর জানার জন্য, তারও মরনোত্তর বিচার চাই সরকারের কাছে। যদি সরকার তা না করে তবে মনে রাখতে হবে একটা প্রবাদ, “অন্যায় যে করে আর অন্যায় যে সহে, তব ঘৃনা তারে যেন তৃনসম দহে?।

সাঈদ, মুক্তিযোদ্ধা বিমানসেনা August 19, 2017 at 2:39 pm

বংগবন্ধু মরেনি, তিনি থাকবেন আমাদের মাঝে ততদিন যতদিন পদ্মা-মেঘনা রবে বহমান। ঐ দিন হায়েনাদের হাতে যারা জীবন দিয়েছেন তাদের সকলের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি সেই সাহে সেই হায়েনার দলকে জিজ্ঞেস করছি, “দেখেছিস বংগবন্ধুর জনপ্রিয়তা? তাকে মেরে কি পেয়েছিস? জাতি কি হারালো? একবার নিজেকে জিজ্ঞেস করে দেখবি কি তোদের অবস্থান কোথায়?” সেই হায়েনাদের প্রধান উপদেষ্টা, যিনি সেই ১৫ আগষ্ট সারা রাত ইউনিফর্ম পরিহিতাবস্থায় সেনা সদরে বসে ছিলেন হত্যা কান্ডের খবর জানার জন্য, তারও মরনোত্তর বিচার চাই সরকারের কাছে। যদি সরকার তা না করে তবে মনে রাখতে হবে একটা প্রবাদ, “অন্যায় যে করে আর অন্যায় যে সহে, তব ঘৃনা তারে যেন তৃনসম দহে?। জয় বাংলা, জয় বংগবন্ধু।

সাঈদ, মুক্তিযোদ্ধা August 19, 2017 at 2:57 pm

Not only DOA, can we try to find out the criminals who are hiding in th USA?

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।