Tuesday, October 17, 2017

আটলান্টিক সিটি প্রতিনিধি : শুভ মহালয়া। সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ মহালয়া।মহালয়ার দিন ভোরবেলা চণ্ডীপাঠের মধ্য দিয়ে আবাহন ঘটে দেবী দুর্গার, দেবীকে আমন্ত্রণ জানানো হয় মর্ত্যালোকে। মূলতঃ মহালয়ার দিন থেকেই সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা দুর্গাপূজার আগমনী বার্তা শুনতে পান।
হিন্দু শাস্ত্রে বলা হয়েছে, মহালয়ার অর্থ হচ্ছে মহান আলোয় দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গাকে আবাহন। শাস্ত্র মতে, অমাবস্যা তিথিতে পিতৃপক্ষের শেষ হয়, আর প্রতিপদ তিথিতে শুরু হয় দেবীপক্ষের। আজ মহালয়ার মাধ্যমে শুরু হচ্ছে সেই দেবীপক্ষ। আজ পিতৃপক্ষের শেষ ও দেবীপক্ষের সূচনা। ধর্মমতে, এই দিনে দেব-দেবীকূল দুর্গাপূজার জন্য নিজেদের জাগ্রত করেন। মহালয়ার দিন ভোরে মন্দিরে মন্দিরে শঙ্খের ধ্বনি ও চণ্ডী পাঠের মধ্য দিয়ে দুর্গা দেবীকে আবাহন জানানো হয়, দেবীর আরাধনা সূচিত হয় মহালয়ার মাধ্যমে।
আটলান্টিক সিটিতে শ্রী শ্রী গীতা সংঘের উদ্যোগে গত ঊনিশ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মহালয়া উদযাপন উপলক্ষে গীতি আলেখ্য ‘আগমনী’ পরিবেশিত হয়। গীতা সংঘের প্রার্থনা হলে অনুষ্ঠিত গীতি আলেখ্যর শুরুতে সংগঠনের সভাপতি কাঞ্চন চৌধুরী অনুষ্ঠানে উপস্থিত সুধীজনকে শারদ শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন।এই গীতি আলেখ্যে অংশগ্রহন করেন তৃপ্তি সরকার, সান্তনা রায় চৌধুরী, তৃষা তালুকদার, ইন্দিরা চৌধুরী, মনিকা দাশ , মুনমুন চক্রবর্তী,পূজা তালুকদার, প্রিয়াংকা চৌধুরী, সুভাষ চক্রবর্তী, বিপ্লব তালুকদার, প্রদীপ দে, নরেন্দ্রনাথ দত্ত, শ্যামল চক্রবর্তী, সজল দাশ, বিপ্লব দেব, পার্থ প্রতীম দত্ত প্রমুখ। গীতিআলেখ্যে অংশগ্রহনকারী শিল্পী ও কলাকুশলীদের মনোজ্ঞ পরিবেশনা গীতা সংঘের মহালয়া উদযাপনে ভিন্ন মাএা এনে দেয়, যা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সুধীজন প্রাণভরে উপভোগ করেন ।

0 Comments

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।