Thursday, October 19, 2017

ফ্লোরিডা : ফোবানার নবনির্বাচিত ৫ শীর্ষ কর্মকর্তা হাতে হাত রেখে প্রবাসীদের বাংলাদেশের কল্যাণে একিভূত করার দৃপ্ত প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। ছবি-এনআরবি নিউজ।

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : ফেডারেশন অব বাংলাদেশী এসোসিয়েশন্স ইন নর্থ আমেরিকা তথা ফোবানার এক্সিকিউটিভ কমিটি (২০১৭-১৮)’র চেয়ারম্যান হলেন আতিকুর রহমান আতিক (ফ্লোরিডা) এবং এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি হয়েছেন শাহ মো. হালিম (টেক্সাস)। একইভাবে যুগ্ম নির্বাহী-সচিব হিসেবে পুননির্বাচিত হয়েছেন জাকারিয়া চৌধুরী (নিউইয়র্ক)। অপরদিকে, সামনের বছর ৩২তম ফোবানা সম্মেলন জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টা এবং ২০১৯ সালের ৩৩তম ফোবানা সম্মেলন হবে নিউইয়র্কে ড্রামা সার্কেলের ব্যবস্থাপনায়। ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের মায়ামী সিটিতে ৩দিনব্যাপী ফোবানা সম্মেলনের শেষ দিন তথা ৮ অক্টোবর রোববার এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। কানাডা এবং আমেরিকার বিভিন্ন স্থান থেকে জড়ো হওয়া নেতৃবৃন্দের এক বৈঠকে নয়া কমিটির নির্বাচন হবার কথা ছিল। কিন্তু শীর্ষ ৩টি পদে একাধিক প্রার্থী না থাকায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার ( ফোবানা এক্সিকিউটিভ কমিটির সদ্য বিদায়ী চেয়ারম্যান) আজাদুল হক তাদেরকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করেন। অপরদিকে গোপন ব্যালটে অনুষ্ঠিত নির্বাচনেভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয় লাভ করেন মোহাম্মদ আলমগীর (ওয়াশিংটন ডিসি) এবং ট্রেজারার পদে মাসুদ রব চৌধুরী (ক্যালিফোর্নিয়া)।
এছাড়া ফোবানা এক্সিকিউটিভ কমিটির প্রাক্তন চেয়ারম্যান আজাদুল হক, প্রাক্তন এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি এম মাওলা দিল, ৩১তম ফোবানা সম্মেলনের কনভেনার এম রহমান জহির, সদস্য সচিব আরিফ আহমেদ আশরাফ পদাধিকার বলে এক্সিকিউটিভ মেম্বার হিসাবে নতুন কমিটিতে কাজ করবেন।
নতুন নির্বাহী কমিটিকে বিপুল করতালির মধ্যে পরিচয় করিয়ে দেয়ার পর সকলেই হাতের ওপর হাত রেখে দৃপ্ত প্রত্যয়ে ঘোষণা করেন বাংলাদেশের সার্বিক কল্যাণে প্রবাসীদের ঐক্যবদ্ধ করার পাশাপাশি প্রবাস প্রজন্মে বাঙালি সংস্কৃতি বিকাশের লক্ষ্যে কাজ করে যাবার।
মূলমঞ্চে সামনের বছরের হোস্ট সংগঠনকে ফোবানার পতাকা হস্তান্তর করা হয়। আটলান্টাস্থ বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের কর্মকর্তারা এ সময় সকলকে আগাম আমন্ত্রণ জানান।


সমাপনী রজনীতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন রুনা লায়লা। আগের রাতের মধ্যমণি ছিলেন সাবিনা ইয়াসমীন আর ফকির আলমগীর। ফোবানার স্লোগানের পরিপূরক সঙ্গীত পরিবেশন করে এই ৩ জনপ্রিয় শিল্পী প্রবাসীদের মোহিত করে রেখেছিলেন। এছাড়া, উত্তর আমেরিকার জনপ্রিয় শিল্পীদের অন্যতম তাজ এবং প্রমিও সকলকে মুগ্ধ করেছেন।
মায়ামীর এ সম্মেলনের সবগুলো অনুষ্ঠানের প্রাণ ছিলেন প্রবাসের নতুন প্রজন্ম। তাদের সক্রিয় উপস্থিতি অভিভাবকদের মধ্যে আশার সঞ্চার ঘটিয়েছে। ৩০ বছর আগে এমন সংকল্পেই ফোবানার যাত্রা শুরু হয়। প্রসঙ্গত: উল্লেখ্য যে, এবারের ফোবানায় পজিটিভ বাংলাদেশকেই প্রতিফলন ঘটানোর প্রয়াস পরিলক্ষিত হয়েছে। এর প্রধান অতিথি ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

 

0 Comments

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।