Dec 11, 2017

হাকিকুল ইসলাম খোকন : ১৩ই নভেম্বর হিলসাইডস্থ স্টার পার্টি সেন্টার জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভায় আগামী ১৬ ডিসেম্বর শনিবার২০১৭ বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা, আলোচনা সভা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনটি পালন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা সু-সম্পন্ন করতে সাবেক সভাপতি মনির হোসেনকে আহ্বায়ক, উপদেষ্ঠা ছদরুন নুরকে প্রধান সমন্বয়কারী, ফারুক হেসেন তালুকদার সমন্বয়কারী ও রাব্বী সৈয়দকে সদস্য সচিব করে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।
সংগঠনের সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক রেজাউল আজাদ ভূঁইয়ার পরিচালনায় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধান উপদেষ্ঠা এবিএম ওসমান গনি, উপদেষ্ঠা ছদরুন নূর, উপদেষ্ঠা অধ্যাপিকা হোসনে আরা, উপদেষ্ঠা ফারুক হোসেন তালুকদার ,প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ফকরুল ইসলাম দেলোয়ার,প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক ও সাবেক সভাপতি বিলাল আহমদ চৌধুরী, সাবেক সভাপতি মনির হোসেন, সহ-সভাপতি শেখ হায়দার আলী, সহ-সভাপতি
শেখ আনসার আলী, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ইফজাল চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. কামরুজ্জামান বাবু,কোষাধক্ষ্য সহদেব তালুকদার, শিক্ষা সম্পাদক কাজী এন,ইসলাম, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক কবীর মুন্সী, সাহিত্য সম্পাদক লিটন আহমদ, সিনিয়র সদস্য আলী কে, কনক, সদস্য আনোয়ার হোসেন, সদস্য রাব্বী সৈয়দ।
সভায় সংগঠনের অন্যতম উপদেষ্ঠা সালেহ আহমদের মাতা ও উপদেষ্ঠা ড. ওয়াজেদ আলী খানের শাশুড়ীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়, মরহুমাদ্বয়ের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া পড়া হয় এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়।
সভাপতির বক্তব্যে সকলকে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির অনুষ্ঠানকে সফল করতে ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া কর্মীদের সহযোগীতা আশা করেন এবং বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে জ্যামাইকাবাসীর সর্বোচ্চ অংশ গ্রহন নিশ্চিত করতে নেতাকর্মীদের একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

2 Comments

একজন প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা November 18, 2017 at 9:56 am

মুক্তিযোদ্ধাদেরকে সন্মাননা প্রদান করা হবে এটাতো অনেক ভাল খবর কিন্তু মুক্তিযোদ্ধাদেরকে কি নিমন্ত্রন করা হবে নাকি অন্য কিছু? দেখা যাক নিমন্ত্রনের অপেক্ষায় থাকলাম।

এক বাংগালী মুক্তিযোদ্ধা, ণিউ ইয়র্ক থেকে November 19, 2017 at 7:08 pm

প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা ভাই, আপনার সাথে আমিও একই কথা বলতে চাই। বেশ কয়েক বছর যাবত জ্যামাইকায় এই বিজয় দিবস উতযাপিত হয়ে থাকে কিন্তু নিউ ইয়র্কের মুক্তিযোদ্ধাদের খোজ নেয়া হয় বলে শুনিনি। কিছু মুক্তিযোদ্ধা নামধারী অমুক্তিযোদ্ধাদেরকে খবরের কাগজের পাতায় দেখতে পাই। জানিনা কেন তারা মুক্তিযোদ্ধাদেরকে এভাবে এড়িয়ে চলছে। হয়তোবা কোনো কারন আছে। দেখা যাক এবার কি করে। তারা মনে হয় জানেনা যে এই বিজয় দিবস কাদের আত্মত্যাগের ফসল।

Leave a Comment

সব খবর (সব প্রকাশিত)

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ।