Jan 16, 2018

ব্যপক উৎসাহ, উদ্দীপনা ও বৈচিত্রপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস, রোম-এ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে বাংলাদেশের ৪৭তম মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। সকালে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে বিজয় দিবসের কর্মসূচীর সূচনা করেন ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান শিকদার। অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করেন মান্যবর রাষ্ট্রদূত। স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিটের নীরবতা পালন করা হয়। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতীমন্ত্রী প্রদত্ত বানীসমূহ পাঠ করে শোনান দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ। দিবসটির তাৎপর্য নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন ইতালিস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ। স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। মান্যবর রাষ্ট্রদূত তাঁর বক্তব্যে স্বাধীনতা সংগ্রামের মাধ্যমে বাঙ্গালী জাতির অর্জনকে আরো অর্থবহ করার জন্য অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে সকল প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকগণকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার জন্য আহবান জানান। তারা দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অবদান বজায় রাখবেন বলেও রাষ্ট্রদূত আশা প্রকাশ করেন। নতুন প্রজন্মকে অবহিত করার জন্য স্বাধীনতা যুদ্ধের উপর বিশেষ প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। বিজয় দিবস উপলক্ষে দূতাবাসে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতারও আয়োজন করা হয়। চার থেকে তের বছর বয়সী রোম প্রবাসী উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিশু এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। পরে তাদের হাতে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত। পিঠা উৎসব ছিল দূতাবাসের অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ। আগত অতিথিগণ বিপুল উৎসাহের সাথে দূতাবাসের পিঠা উৎসবে অংশগ্রহণ করেন এবং বিভিন্ন ধরনের পিঠার স্বাদ গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে রোম প্রবাসী খ্যাতনামা শিল্পীগণ সংগীত পরিবেশন করেন। দেশাত্মবোধক, লালন, আধুনিক ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের গানের মুর্ছনায় বাংলাদেশ দূতাবাস উদ্বেল হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে দূতাবাস পরিবারের সদস্যগণও বেশ কয়েকটি দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন। তাদের প্রানবন্ত পরিবেশনা উপস্থিত সকলের প্রশংসা অর্জন করে। অনুষ্ঠান শেষে আগত অতিথিদের মধ্যাহ্নভোজ দ্বারা আপ্যায়ণ করা হয়। রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও গণমাধ্যম অঙ্গনসহ সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশীর উপস্থিতিতে বাংলাদেশ দূতাবাস হয়ে ওঠে যেন এক টুকরো বাংলাদেশ। মান্যবর রাষ্ট্রদূতের সার্বিক নির্দেশনায় দূতাবাসের প্রথম সচিব ইরিন ইসলামের সমন্বয়ে ও প্রথম সচিব শেখ সালেহ আহমেদের উপস্থাপনায় দূতাবাস আয়োজিত বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানটি উপস্থিত সবাইকে মুগ্ধ ও আনন্দিত করে।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন