Jan 17, 2018


ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম :: নিউইয়র্কে উৎসব আমেজে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করেছে বাংলাদেশী-আমেরিকান ডেমোক্রেটিক সোসাইটি। এ উপলক্ষে ব্রঙ্কসের স্টারলিং-বাংলাবাজার এলাকায় মামুন’স টিউটোরিয়াল মিলনায়তনে গত ২৪ ডিসেম্বর রোববার আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংগঠনটি।
বাংলাদেশী-আমেরিকান ডেমোক্রেটিক সোসাইটির প্রেসিডেন্ট শামীম আহমেদের সভাপতিত্বে এবং তিতাস মাল্টি সার্ভিস’র প্রেসিডেন্ট মেহের চৌধুরী ও উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব শাহ রাহিম শ্যামলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল চেযারম্যান ডেইজি সারওয়ার, আমন্ত্রিত অতিথি বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, যুক্তরাষ্ট্র’র কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মুকিত চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আবু কায়সার চিশতী, মূলধারার রাজনীতিক ক্যারল রবিনসন, প্রফেসর সায়েম মোন্তাকিম, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম জিকু, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন ইনক’র সাধারণ সম্পাদক জামাল হুসেন ও বৃহত্তর কুমিল্লা সোসাইটি’র সিনিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট খবির উদ্দিন ভূইয়া।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মশকুরুল হক, উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ফয়ছল আহমেদ চৌধুরী, সমন্বয়কারী হিমেল চৌধুরী, মো. গিয়াস উদ্দিন, চৌধুরী এম তানিম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা মুক্তিযোদ্ধাদের বাঙালী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, প্রবাসে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। তাহলেই তারা বাংলাদেশকে জানবে, ভালবাসবে। তুলে ধরবে বাংলাদেশকে। বয়ে আনবে বাংলাদেশের জন্য গৌরব ও সম্মান। সংগঠনের সভাপতি শামীম আহমেদ অনুষ্ঠানে আগত সকলকে ধন্যবাদ জানান।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সংগীত পরিবেশিত হয়। শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সবশেষে ছিলো মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পী ন্যান্সী খান এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন