Jan 16, 2018

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : ১৯৯১ সালের তুলনায় ২০১৫ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার কমেছে ২৬%। অর্থাৎ গত ২৪ বছরে ২৪ লাখ রোগীর প্রাণ বাঁচানো সম্ভব হয়েছে। আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটি ৪ জানুয়ারি এ তথ্য প্রকাশ করেছে।
২০১৫ সালের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ক্যান্সারে আক্রান্তদের প্রতি লাখে মারা গেছে ১৫৮.৬ জন। আগের চেয়ে যা অনেক কম। আর এই কৃতিত্ব এককভাবে চিকিৎসা-ব্যবস্থার নয়, আমেরিকানদের মধ্যে ধূমপানের প্রবণতা হ্রাস পাওয়ার সুফল বলে চিকিৎসা-বিজ্ঞানীরা উল্লেখ করেছেন।
আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির মতে, ক্যান্সার চিকিৎসায় যুগান্তকারি উন্নতিসাধিত হয়েছে। ওষধ আবিস্কার হয়েছে উচ্চ মূল্যে। তবে এখন পর্যন্ত কাঙ্খিত প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটেনি। এমন অভিমত পোষণ করেছেন আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির গবেষণা বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেদিন জেমিল। জেমিল বলেন, ‘ক্যান্সারে আক্রান্ত হবার এমন লক্ষণ ক্রমান্বয়ে বাড়বে। কারণ, জনসচেতনতা বেড়েছে। ধূমপানে আসক্তির হার কমছে। ফলমূলের প্রতি আগ্রহ বেড়েই চলেছে।’
ক্যান্সার সোসাইটির গবেষণা-পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, ১৯৯১ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বেড়েছিল। এরপর চিকিৎসা-বিজ্ঞানীরা কান্সার প্রতিরোধে বহুমুখী কর্মসূচি গ্রহণের ফলে ২০১৫ সালের মধ্যে ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত মহিলার চেয়ে পুরুষ আমেরিকানের মৃত্যুর হার ৪৫% কমেছে। আর মহিলা রোগীর মৃত্যুহার ২০০২ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে কমেছে ১৯%।
এই গবেষণা জরিপের তত্ত্বাবধায়ক তথা আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেদিন জেমিল আরো বলেন, ‘ধূমপান এবং অতিশয় মোটা হওয়ার প্রবণতা রোধ করা সম্ভব হলে মৃত্যুর ঝুঁকি আরো কমানো সহজ হবে।’
ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার ১৯৮৯ সালের তুলনায় ২০১৫ সালে কমেছে ৩৯%। এবং প্রস্টেট ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯৩ সালের তুলনায় ২০১৫ সালে কমেছে ৫২%। মেমগ্রাফির মাধ্যমে প্রাথমিক পর্যায়েই ব্রেস্ট ক্যান্সার ধরা পড়ার পর যথাযথ চিকিৎসা প্রদানের পরিপ্রেক্ষিতে ব্রেস্ট ক্যান্সার দূর করা সম্ভব হচ্ছে বলেও গবেষণা জরিপে মন্তব্য করা হয়েছে।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন