Feb 24, 2018

নিউইয়র্ক : ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. জাকারিয়াকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান প্রবাসের কবি-সাহিত্যিক-সাংস্কৃতিক কর্মীরা। ছবি-এনআরবি নিউজ।

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : ‘এই বাংলাদেশে অনেক দেশ বরেণ্য নেতা জন্ম গ্রহন করেছেন। এদেশের মানুষকে পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করে একটি স্বাধীন-সার্বভৌম ও গর্বিত জাতি সত্ত্বার স্বাধীন দেশ প্রতিষ্ঠার জন্য শত শত বছর ধরে এ মাটির অনেক সন্তানই উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখার চেষ্টা করেছেন। তাদের প্রত্যেকের কাছেই আমরা ঋণী। তবু একথা স্বীকার করতেই হবে নির্যাতন বরণ, নিয়মতান্ত্রিক সংগ্রাম, আপোষহীন নেতৃত্ব এবং যুগপৎ আন্দোলনের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুগান্ত সৃষ্টিকারী এক নেতা। তাঁর ত্যাগ, সাহস ও ব্যক্তিত্ব অতুলনীয়। তিনি নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনকে রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, ধৈর্য্য ও নেতৃত্বের প্রভাবে রূপাšতরিত করেছেন ঐক্যবদ্ধ বিপ্লবে। সে বিপ্লবকে পরিণত করেছেন সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে।’ এসব কথা বলেছেন বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা সিটির উত্তরাস্থ ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের (IBAIS University is a private, nonprofit educational institution in Bangladesh) উপাচার্য ড. জাকারিয়া লিংকন।
যুক্তরাষ্ট্রে বাংলা সাহিত্য, সঙ্গীত, আবৃত্তি ও অভিনয় চর্চা বিষয়ক সংগঠন ‘গাঙচিল সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদ’র ৮৩তম আসরে ড. জাকারিয়া প্রধান অতিথি ছিলেন। গত ৭ জানুয়ারী নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে এ আসর বসে। গাঙচিলের প্রতিষ্ঠাতা নিউইয়র্কে বসবাসরত নাট্যকার খান শওকতের লেখা নাট্যগ্রন্থ ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’কে ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজী সাহিত্য বিভাগের পাঠ্যপুস্তক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সে প্রসঙ্গে ড. জাকারিয়া বলেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭০ জন অধ্যাপকের সভায় এ নাট্যগ্রন্থটি নিয়ে চুলচেরা আলোচনা-পর্যালোচনার পর ইংরেজী সাহিত্য বিভাগের পাঠ্যপুস্তক করা হয়। এটি একদিকে যেমন বঙ্গবন্ধুর কর্মের মূল্যায়ন এবং তার আদর্শ ও চিন্তার প্রসারের প্রতি সম্মান দেখানো হলো, অন্যদিকে একজন প্রবাসী লেখকের লেখনী বাংলাদেশের তরুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরে প্রবাসীদের কর্মের স্বীকৃতির জন্য ভূমিকা রাখতে পেরে আমরা আনন্দিত। আমার বিশ্বাস এ নাট্যগ্রন্থটি বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় ঐতিহাসিক নাটক হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পাবে।’
শুরুতে প্রধান অতিথিকে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন কবি ফারজানা আফরোজ।
এম লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে পরিচালিত এ আসরে বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি আমিনুর রশিদ পিন্টু, লেখক-কলামিষ্ট প্রদীপ মালাকার, প্রবীন ব্যাংকার ও কবি রওশন আরা বেগম এবং গাঙচিল এর প্রতিষ্ঠাতা ও নাট্যকার খান শওকত।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ডা: নার্গিস রহমান, শাহানাজ বেগম লিপি, কানিজ আয়শা, তানিয়া মুনতাজ, হরি নারায়ন বিশ্বাস, মোজাম্মেল সিকদার, এম এম হক, আবু নাসের, জালাল পাটোয়ারী, রকিবুল ইসলাম এবং সুপ্রভাত বড়–য়া।

 

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন