Feb 24, 2018

গত ২১ জানুয়ারি ২০১৮ রবিবার সন্ধ্যা ৬.০০ টায় টরণ্টোস্থ রেড হঁট তন্দুরীর হলরুমে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম) এর ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও বিশেষ দেয়া অনুষ্ঠান করেছে কানাডা বিএনপি। সভায় সভাপতিত্ব করেন সাপ্তাহিক ভোরের আলো সম্পাদক আহাদ খন্দকার। বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব টরণ্টোর সভাপতি প্রকৌশলী রেজাউর রহমান প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় একজন সাধারণ মেজর হয়েও তিনি চাকুরীতে সর্ব্বোচ্চ ঝুঁকি গ্রহণ করে স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়েছিলেন। রাষ্ট্রপতির দায়িত্বভার গ্রহণ করে দেশকে উন্নত, স্বনির্ভর, স্বয়ংসম্পূর্ন করতে যুগান্তকারী সব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। তলাবিহীন ঝুড়ির অপবাদ ঘুচিয়ে ছিলেন। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য ও জাসাস এর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম তালুকদার প্রধান বক্তার বক্তৃতায় বলেন, বাকশাল গঠনের মাধ্যমে রাজনীতি করার, মুক্ত মত প্রকাশ করার স্বাধীনতা কেড়ে নেয়া হয়েছিল। তিনিই বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রবর্তনের মাধ্যমে হারানো অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।আজও তাই বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের দর্শনকে এ দেশের মানুষ ভালোবাসে। মুজিবর রহমানের পরিচালনায় আলোচনায় অংশ নেন অণ্টারিও বিএনপির সাবেক সভাপতি জাকির হোসেন খান, অণ্টারিও বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এজাজ আহমেদ খান, কানাডা বিএনপির সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ হোসেন, রোটারী ক্লাব অব টরণ্টো-ড্যানফোর্থ এর প্রেসিডেন্ট মঈন উদ্দীন চৌধুরী, বিশিষ্ট সমাজসেবক নূরুল ইসলাম, সাপ্তাহিক আজকাল পত্রিকার সম্পাদক মাহবুব চৌধুরী রনি, সাপ্তাহিক নবদ্বীপ নিউজ এর সম্পাদক এম এইচ মামুন, বীর মুক্তিযাদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান লাবু, বীর মুক্তিযাদ্ধা কর্ণেল (অব:) কাজী কায়সার, বিশিষ্ট সংগঠক আখলাক হোসেন, কানাডা মহিলা দলের সভাপতি নাজমা হক, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড: এনামুল্লাহ, বিশিষ্ট গবেষক ও লেখক প্রফেসর ড: সিরাজুল হক চৌধুরী, কানাডা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক রেহেনা আখতার, জিয়া পরিষদের আন্তর্জাতিক সম্পাদক মমিনুল হক মিলন, মাশরুল হোসেন রিপন, মামুনুর রশীদ, হাফিজ উদ্দীন প্রমুখ। সভাপতির বক্তৃতায় আহাদ খন্দকার বলেন, বিএনপির অবস্থান জনগণের মনের অন্ত:স্থলে। আর তাই এ দলের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানকে আওয়ামী সরকার ভয় পায়। তারা চায়, নেত্রীকে জেলে পাঠিয়ে নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষনা করে আর একটি এক তরফা নির্বাচন করতে। কিন্তু সেই চেষ্টা জিয়ার সৈনিকেরা বুকের রক্ত দিয়ে প্রতিহত করবে। আলোচনা শেষে বিশেষ দেয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রোটারিয়ান মঈন উদ্দীন চৌধুরী।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন