Feb 24, 2018


বাংলা প্রেস, বোস্টন থেকে :যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টন ভিত্তিক নিউ ইংল্যান্ড বিএনপি’র নেতারা বলেছেন, অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কোনো রায় হলে প্রবাসীরা তা মানবে না।প্রয়োজনে সুদূর প্রবাস থেকেও সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে। গত শনিবার সন্ধ্যায় সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জিয়াউর রহমানের ৮২ তম জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বিভক্ত নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির একাংশের নেতারা এসব কথা বলেন।এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস।
নিউ ইংল্যান্ড বিএনপি’র সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সোহরাব এইচ খানের সভাপতিত্বে এবং সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাজ্জাক হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তারা আরো বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করতে চায়।কিন্তু সেই অংশগ্রহণের পথে আওয়ামীলীগই বাধার সৃষ্টি করছে। একেবারেই কোনো কারণ ও প্রমাণ ছাড়াই বিএনপি নেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে অভিযুক্ত করার চেষ্টা হচ্ছে।বর্তমান সরকার ৫ জানুয়ারির মতো আবারও একটি ভোটবিহীন নির্বাচন করতে চায়।এজন্য বিএনপি নেত্রী ও আমাদের নেতা তারেক রহমান এবং আরো কিছু নিরীহ মানুষকে বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক কোন মামলায় কাউকে কারাদন্ড বা গ্রেপ্তার করা হলে তাদের মুক্তি দাবির পরিবর্তে সরাসরি সরকারের পতনের আন্দোলন শুরু করব। এ দেশে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের স্বপ্ন বাস্তাবায়ন করতে দেশ ও প্রবাসের সকল নেতা-কর্মীদের বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদে উদ্বুদ্ধ ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান বক্তারা।
সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা চট্টগ্রাম জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এম এ হাশেম, নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির সাবেক উপদেষ্টা মীর ফজলুল করিম,সাবেক উপদেষ্টা প্রফেসর আব্দুস সালাম,সাবেক সহ-সভাপতি আবুল বশর, সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক চৌধুরী নিজাম উদ্দিন(নিশো), সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাজ্জাক হোসেন ও আশেক রাজ্জাক প্রমুখ। অনুষ্ঠানের মাঝে শিশু-কিশোরদের জন্য আকর্ষনীয় জাদু প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য, নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে গত ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ স্থানীয় ক্যামব্রিজে সকল সদস্যদের উপস্থিতে সুষ্ঠ ও শান্তিপ্রিয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।তিনটি পদে নির্বাচনী লড়াইয়ে বিএনপির সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত সভাপতি, সাধারন সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদককে না জানিয়েই উক্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন নির্বাচনে পরাজিত বিএনপির নেতাকর্মিরা।এর কারন হিসেবে তারা উল্লেখ করেন নির্বাচিত নেতারা যদি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট শহীদ জিয়ার জন্মদিন পালনের উদ্যোগ না নেন তাহলে আমরা তো আর চুপ করে বসে থাকতে পারিনা।প্রেসিডেন্ট জিয়ার আদর্শের সৈনিক হিসেবে আমরা পরাজিত হয়েও তাঁর জন্মদিন পালনের আয়োজন করেছি।এটাতে দোষের কিছুই নেই।বরং ভোটে নির্বাচিত ব্যক্তিরা এ অনুষ্ঠানে না আসার জন্য অন্যদেরকে ফোনবার্তা পাঠিয়ে নিষেধ করে হীনমন্যতার পরিচয় দিয়েছেন।এ ব্যাপারে সভায় নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।
শেষে নিউ ইংল্যান্ড বিএনপি’র সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সোহরাব এইচ খানকে সভাপতি এবং সাবেক সহ-সভাপতি আবুল বশরকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩০১ সদস্য বিশিষ্ট একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এ কমিটিতে বিএনপির ভোটার তালিকাভুক্ত ১২২ জন সদস্যকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।এতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কাজী নুরুজ্জামানকে ১ নম্বর উপদেষ্টা এবং বর্তমান নির্বাচিত সভাপতি সৈয়দ বদরে আলম সাইফুলকে ৬ নম্বর উপদেষ্টা পদে রাখা হয়েছে। এছাড়া বর্তমান নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক আশরাফুল আলম টিটুকে ২ নম্বর যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এবং নির্বাচিত সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে রাখা হয়েছে যুগ্ম সাধারন সম্পাদক পদে।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন