Feb 24, 2018

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে  (৫ ফেব্রুয়ারি) : মার্কিন পাসপোর্ট কেড়ে নেয়ার হুমকি দিয়েছে আইআরএস (ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিস)। বকেয়া ট্যাক্স অবিলম্বে পরিশোধের প্রক্রিয়া অবলম্বন না করলেই সংশ্লিষ্টরা ইউএস পাসপোর্ট হারাবেন।
গত সপ্তাহে আইআরএস এক প্রজ্ঞাপণে উল্লেখ করেছে, ৫১ হাজার ডলারের অধিক বকেয়া রয়েছে, তারাই পাসপোর্ট হারাতে পারেন। ইতিপূর্বে বহুবার অনুরোধ, উপরোধ করা হয়েছে বকেয়া পরিশোধের জন্যে। কিন্তু কেউই তা আমলে নেননি। এজন্যে এমন কঠিন পদক্ষেপ নিতে আইআরএস বাধ্য হচ্ছে। আর এই পন্থা অবলম্বন করা হচ্ছে ‘ফিক্সিং আমেরিকা’স সারফেস ট্র্যান্সপোর্টেশন এ্যাক্ট’কে কার্যকর করার স্বার্থেই। এ আইন হয়েছে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর। এতদিন তা কার্যকর করা হয়নি সর্বসাধারণের সুবিধার্থে। এ সুবিধার আওতায় বকেয়া ট্যাক্স কিস্তিতেও পরিশোধ করা যেতে পারে। কিন্তু অনেকেই সে সুযোগ নিতেও আগ্রহ দেখাননি।
‘ফিক্সিং আমেরিকা’স সারফেস ট্র্যান্সপোর্টেশন এ্যাক্ট’ অনুযায়ী স্টেট ডিপার্টমেন্ট বকেয়ার জন্যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পাসপোর্ট নবায়ন করা থেকেও বিরত থাকতে পারে। নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করা থেকেও বিরত থাকার অধিকার রয়েছে স্টেট ডিপার্টমেন্টের। এমনকি, যারা ভ্রমণে রয়েছেন, সে অবস্থাতেও পাসপোর্ট বাতিলের অধিকার পেয়েছে কর্তৃপক্ষ।
আইআরএস বলেছে, বকেয়া একত্রে অথবা কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে কিস্তিতে পরিশোধ করা যাবে। বিচার বিভাগের মাধ্যমে কিস্তির পদক্ষেপ নিতে হবে। তবে যারা ব্যাঙ্ক্রাপসী ঘোষণা করেছেন অথবা ট্যাক্স ইস্যুতে প্রতারণার শিকার হয়েছেন কিংবা অর্থ সংকটে পড়েছেন বা ফেডারেল ঘোষিত দুর্গত এলাকায় বাস করছেন, কিস্তিতে পরিশোধের আবেদন পেন্ডিং রয়েছে, আইআরএস’র সাথে দেন-দরবারে আছেন তারা এই বিধির আওতায় পড়বেন না।

0 Comments

Leave a Comment

বিজ্ঞাপন

পাঠকের মন্তব্য

বিজ্ঞাপন

লক্ষ্য করুন

প্রবাসের আরো খবর কিংবা অন্য যে কোন খবর অথবা লেখালেখি ইত্যাদি খুঁজতে উপরে মেনুতে গিয়ে আপনার কাংখিত অংশে ক্লিক করুন। অথবা ‌উপরেরর মেনু'র সর্বডানে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন এবং আপনার খবর বা লেখার হেডিং এর একটি শব্দ ইউনিকোড ফন্টে টাইপ করে সার্চ আইকনে ক্লিক করুন।
ধন্যবাদ।

বিজ্ঞাপন